হলদে গুজব

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬

হলদে গুজব

শফিক হাসান ৪:০০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩০, ২০১৯

print
হলদে গুজব

ডট কমের সম্পাদক হিসেবে আত্মপ্রকাশের পর নাজিবুল হক বুঝলেন, প্রতিষ্ঠানের নামে ‘কম’ থাকার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কাজ করতে হবে বেশি বেশি! নইলে মার্কেট ধরা কঠিন হবে। প্রথমেই বাড়ালেন নিজের নাম। পিতৃপ্রদত্ত নামে চৌধুরী যোগ করে আভিজাত্য আনলেন। সম্পাদক মানুষ, এটুকু না থাকলে লোকে পুঁছবে কেন!

হলুদ সাংবাদিকতার অপবাদ আকছার সহ্য করতে হচ্ছে নাজিবুল হক চৌধুরীকে। ভ্রূক্ষেপ করেন না তিনি। প্রচারেই প্রসার; আজ হলুদ বলছে, সবুজ বলতে কতক্ষণ! সাইটের হিট বাড়ানোর জন্য কিছু সংবাদ কৌশলে পরিবেশন করেন। আলোচনা এবং সম+আলোচনায় থাকতে এসব লাগে। মুম্বাইয়ের এক নায়ককে নিয়ে প্রায়ই এটা-ওটা ছাপা হচ্ছে বিভিন্ন পত্রিকায়। নায়ক জড়িয়েছেন তৃতীয় প্রেমে! নাজিবুল হক চৌধুরী সম্পাদিত বগিজগি ডট কম ছাপল চটকদার সংবাদ- ‘মা হচ্ছেন নায়ক দেবানন্দ’! পুরুষ কীভাবে মা হবে- উত্তর খুঁজতে দূরে যেতে হয়নি। শেষ প্যারায় ছাপা হয়েছে ‘সন্তোষজনক’ ব্যাখ্যা। নায়কের ছোট বোন কয়েক মাস আগে মা হয়েছেন। দেবানন্দ যখনই ভাগ্নেকে কোলে নেন, বাবু বিস্তর লালা ঝরিয়ে উচ্চারণ করে- ম্ ম্ ম্ মা...!

কয়েক বছর আগে যৌথ প্রযোজনার এক ছবিতে অভিনয় করেছিলেন এ নায়ক। সঙ্গত কারণে বাংলাদেশেও বইল আলোচনার ঝড়। চলচ্চিত্রটির প্রয়োজন হিসেবে সদরুল মল্লিককেও সাক্ষাৎকার দিতে হলো কয়েকটি ডট কমে! জনপ্রিয় নায়কের সংবাদটি শেয়ার হলো কয়েক হাজার। বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসীরা প্রচারণায় রাখল বিশেষ ভূমিকা।

কিছুদিন পর দল বদলের সংবাদ ছাপা হলো বগিজগি ডট কমে। শিরোনাম- ‘ফের দল পাল্টাচ্ছেন সদরুল মল্লিক’! জাতীয় রাজনীতির এ শীর্ষনেতা দীর্ঘদিন সরকারকে বিস্তর গাল-মন্দ করে বিরোধী দল থেকে সরকারি দলে যোগদান করেছেন। দুই সপ্তাহ পেরোয়নি, আবার কোন সুবিধার জন্য দল পাল্টাচ্ছেন! তোলপাড় শুরু হলো সরকারের শীর্ষ পর্যায়েও।

ডান-বামপন্থীরা বিবৃতি দিলো, জনগণকে যারা স্বস্তি দিতে পারে না, বড় নেতারা সেখানে কীভাবে টিকবে! সংবাদের বিস্তারিত অংশে জানা গেল, ছোটবেলা থেকেই হাডুডু খেলেন সদরুল মল্লিক। একটি দলে দীর্ঘ বিশ বছর খেলেছেন। বর্তমানে দলটিতে নিয়মিত খেলাধুলা না হওয়ায় অন্য ক্লাবে যোগ দিলেন তিনি! এ ঘটনায় নেতা কল করে বিস্তর বকাঝকা করলেন। নাজিবুল হক চৌধুরী বললেন- স্যার, আমি আপনার বড় শুভাকাক্সক্ষী। সত্য করে বলেন তো, যারা আপনাকে চিনত না, সংবাদটি দেশ-বিদেশের আনাচেকানাচে ছড়িয়ে পড়ায় নাম পৌঁছে যায়নি? সরকারি ও বিরোধী দলে আপনার কদর বাড়েনি!

খুশি হলেন সদরুল মল্লিক। যুক্তি অকাট্য। নেতার প্রচার-দুর্বলতার সুযোগ নিলেন ফের ডট কমের সম্পাদক। এবার আরও চটকদার সংবাদ- ‘স্ত্রী চলে গেলেন সদরুল মল্লিকের!’ পঞ্চাশোর্ধ মহিলা যদি স্বামীকে ছেড়ে অন্য কারও হাত ধরে সেটা বড় সংবাদই! বিস্তারিত ছাপা হলো- ছোট বোনের বিয়ে উপলক্ষে তিনি বাপের বাড়িতে গেছেন! এদিকে নেতা নিজেই রান্না করতে গিয়ে হাত পুড়িয়ে ফেলেছেন!

পরের সপ্তাহে স্পেশাল ট্রিটমেন্টে ছাপা হলো আরেকটি বড় সংবাদ- ‘গাছ কাটলেন নদী ও সমুদ্রমন্ত্রীর খালাতো ভাই’! ছবি হিসেবে শত শত কর্তিত গাছ দেখানো হলেও ভেতরে বলা হলো, নিজেদের ৫০ বছর বয়সী একটি কড়ই গাছ কেটে আসবাবপত্র বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মন্ত্রীর খালাতো ভাই। এ গাছ কাটা উপলক্ষে মন্তব্য করেছেন কয়েকজন পরিবেশবাদীও। একজন বললেন, তিনি নিজের গাছ কাটবেন এটা দোষণীয় নয়। কাটার সময় কোনো মানুষের ঘাড়ে পড়লে, কেউ মারা গেলে সেটা পুলিশ কেস...!

মন্ত্রী খালাতো বোন রুমকির খ্যাতি আছে হার্টথ্রব নায়িকা হিসেবে। গাছকা- চাপা পড়ার আগেই ছাপা হলো আরেকটি সংবাদ- ‘ঘর বাঁধলেন নায়িকা রুমকি : মা হচ্ছেন শিগগির!’ বিস্তারিত সংবাদে জানা গেল, কাটা গাছ দিয়ে প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র বানানোর পরও উদ্বৃত্ত রয়ে গেছে অনেক। এ কাঠ দিয়েই রুমকি গ্রামের বাড়িতে নতুন একটি চারচালা ঘর তুললেন! এদিকে বড় ভাই তার বিয়ের জন্য তোড়জোড় শুরু করেছেন! বিয়ে হয়ে গেলে প্রথম বছরেই সন্তান নিতে পারেন রুমকি- এমনটি বলা হয়েছে সংবাদ বিশ্লেষণে!

নানা রঙের এসব সংবাদে বিরক্ত হয়ে মন্ত্রী বিবৃতি দিলেন। বর্ষণ করলেন সদুপদেশ। বোধহয় মন্ত্রীকে খুশি করতেই রংবিশিষ্ট আরেকটি অনলাইন প্রকাশ করলো শোক সংবাদ- ইন্তেকাল করলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক নাজিবুল হক চৌধুরী। জানাজা কবে হবে জানা যায়নি তবে কুলখানি হবে চারদিন পরে!