ওকা-ফখার কাল্পনিক সংলাপ

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ওকা-ফখার কাল্পনিক সংলাপ

নূরে রোকসানা সুমি ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৪, ২০১৮

print
ওকা-ফখার কাল্পনিক সংলাপ

ওকা : ফখা ভাই, বিএনপি-আওয়ামী লীগ পরিচয়ের বাইরে আমাদের মধ্যে কী অদ্ভুত মিল!
ফখা : কীসের মিল! আমরা ক্ষমতায় থাকাকালে আপনাদের মতো এত স্বৈরাচারী আচরণ করিনি!

ওকা : আমি কই কী, সারিন্দায় বাজায় কী! আমি সাধারণ সম্পাদক, আপনি মহাসচিব অথচ আমার বাড়ি নেই, আপনার গাড়ি নেই-বিষয়টা খেয়াল করেছেন!
ফখা : খেয়াল না করে উপায় আছে! কী সুন্দর গাড়ি-বাড়ি মিলে গেল; অথচ আপনারা আমাদের পাত্তাই দেন না! আমাদের নেত্রীকে জেলে রেখে...।

ওকা : আপনার এসব অপ্রাসঙ্গিক আলাপের জন্যই কখনোই আলোচনা ফলপ্রসূ হয় না। আমি বলতে চাইছি নারীর ক্ষমতায়নের কথা!
ফখা : সেটাই তো আমরা বছরের পর বছর বলে আসছি। আপনার নেত্রী অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে আছেন। অন্যদিকে আমার নেত্রীকে ষড়যন্ত্র করে...

ওকা : আবার বেলাইনে গেলেন। আমি বলতে চেয়েছি, আপনিও স্ত্রীর ওপর নির্ভরশীল, আমিও। কী অদ্ভুত মিল তাই না?
ফখা : আমরা ক্ষমতায় গেলে নারীর ক্ষমতায়নে আরও ভূমিকা রাখব। আমার স্ত্রী আরও সম্পদশালী হবে...।

ওকা : আর আমার স্ত্রীর বুঝি কিছুই থাকবে না?
ফখা : কেন থাকবে না, আমরা তো স্ত্রীর বলেই বলীয়ান!

ওকা : তাহলে এবার চলেন, স্ত্রীদ্বয়ের সম্মানে আমরা দুই ভাই মিলে এক কাপ কফি খাই!
ফখা : নির্বাচনে কারচুপি হলে কিন্তু আগুন জ্বলবে!

ওকা : পানির ঘাটতি পড়েনি দেশে! ক্যাচাল রেখে চলেন, আমরা আগুন-গরম চা খাই!
ফখা : একটু আগে বললেন কফি, এখন আবার চায়ে নেমে এলেন! আপনাদের চরিত্রই এমন! বলেন এক করেন আরেক!

ওকা : চরিত্র নিয়ে কথা তুলবেন না ফখা ভাই! আমাদের কাছে প্রমাণ আছে...
ফখা : তবে রে!

ওকা : কবে রে!