সবজি উৎপাদনে সেরা রাজশাহীর চাষিরা

ঢাকা, শনিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২০ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

সবজি উৎপাদনে সেরা রাজশাহীর চাষিরা

এমএ আমিন রিংকু, রাজশাহী ১:৫৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২১, ২০২০

print
সবজি উৎপাদনে সেরা রাজশাহীর চাষিরা

শীতকালীন সবজিতে স্বপ্ন দেখছে রাজশাহীর কৃষকরা। সবজি উৎপাদনে সহায়ক আবহাওয়া আর দানা জাতীয় শস্যের চেয়ে সবজি ও ফলমূল উৎপাদন অধিক লাভজনক হওয়ায় গত কয়েক বছর থেকে নানা ধরনের সবজি চাষে ঝুঁকেছেন তারা। এছাড়া গত বছরের চেয়ে এ মৌসুমে অধিক লাভ ও ফলনের আশাও করছেন এ অঞ্চলের সবজি চাষিরা।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানায়, ভূগর্ভস্থ পানির ওপর চাপ কমাতে আট বছর ধরে রাজশাহীতে বোরো ধান ছেড়ে অন্য ফসল চাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। যার সুফলও পেতে শুরু করেছে চাষিরা।

পানি সাশ্রয়ী ফসলের চাষ বাড়াতে গিয়ে গেল বছর রাজশাহী সবজি উৎপাদনে দেশসেরা হয়েছে। জেলার পবা উপজেলার মধুসুদনপুর গ্রামের কৃষক আতিকুর রহমান জানান, কৃষি শ্রমিকের মজুরিসহ উপকরণের দাম বাড়ায় অন্য ফসল চাষ করে লাভ ঘরে তোলা যায় না। লাভের জন্য আমরা এখন সবজির দিকেই তাকিয়ে থাকি।

গত বছর আমার এক একর মুলা ও বাধাকপিতে দেড় লাখ টাকার বেশি লাভ হয়েছে। এবারও বাধাকপি বেশ ভালো হয়েছে। আশা করছি গত বছরের চেয়ে এ বছর অধিক লাভবান হতে পারব।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. শামসুল হক জানান, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রাজশাহীতে ২২ হাজার ২৩৫ হেক্টর জমিতে সবজি চাষ করা হয়েছে। হেক্টরপ্রতি গড় উৎপাদন হয়েছে ১৮ দশমিক ১২ মেট্রিক টন। মোট উৎপাদনের পরিমাণ ছিল ৪ লাখ ২ হাজার ৭৯০ মেট্রিক টন।

২০১৮-১৯ সালে রাজশাহীতে দেশে সর্বোচ্চ ২১ হাজার ৩৩৫ হেক্টর জমিতে সবজির চাষ হয় যার কারণে দেশসেরার পুরস্কারও পেয়েছে রাজশাহী। গেল আট বছরে জেলায় ২ হাজার ৮২৭ হেক্টর জমিতে সবজি চাষ বেড়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘সবজি চাষের জমির পরিমাণ বৃদ্ধি ও হেক্টর প্রতি সবজির উৎপাদন বৃদ্ধির কারণে কৃষি মন্ত্রণালয় দেশের মধ্যে রাজশাহীকে সবজি উৎপাদনে প্রথম হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে।