আখ চাষে স্বপ্ন

ঢাকা, শনিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২০ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

আখ চাষে স্বপ্ন

জহুরুল হক মিলু, লোহাগড়া ১২:০৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০২০

print
আখ চাষে স্বপ্ন

নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গেন্ডারি আখের চাষ বেড়েছে। চলতি বছর উপজেলা বিভিন্ন এলাকার মাঠে ১৫০ হেক্টর জমিতে এ জাতের চাষ হয়েছে। আগে এলাকার ব্যবসায়ীরা ফরিদপুর, আলফাডাঙ্গা, কাশিয়ানিসহ বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে এ আখ ক্রয় করে এখানে এনে বিক্রি করতেন। এখন নিজেদের মাঠে হওয়ায় বিক্রি বেড়েছে।

আখচাষ করে কৃষকরা লাভবান হচ্ছেন। সে কারণে লোহাগড়া উপজেলার এ গেন্ডারি আখের চাষ ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিদিনই উপজেলায় ছোট-বড় বাজারগুলোতে অসংখ্য গেন্ডারি আখের দোকান দেখা যায়। রাস্তার ধারে বসা এসব দোকানে বিক্রি হচ্ছে এ আখ।

আখ চাষ নিয়ে আশাবাদী লোহাগড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সমরেন বিশ্বাস। তিনি জানান, আট থেকে দশ বছরের ব্যবধানে ১৫০ হেক্টর জমিতে এই আখের চাষ ছড়িয়ে পড়েছে। এটা খুবই লাভজনক হওয়ায় কৃষকরা এই চাষে ঝুঁকে যাচ্ছে। তারাও কৃষকদের চাষের পরামর্শ দিচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, ধান, কলাই ও সরিষার পরই গেন্ডারি আখ চাষ এগিয়ে যাচ্ছে লোহাগড়া উপজেলায়।

লোহাগড়া উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এই উপজেলা ধান, পাট, কলাই, সরিষা চাষের উপজেলা হিসেবে পরিচিত। এখানে প্রচুর পরিমাণে ধান, পাট, কলাই, সরিষার চাষ হয়ে থাকে। ২০০০ সালের পর থেকে গেন্ডারি আখের চাষ শুরু হয়।

এ বছর ১৫০ হেক্টর জমিতে চাষ হয়েছে। সরেজমিন লোহাগড়া উপজেলার কয়েকটি গ্রাম ঘুরে দেখা যায়, মাঠের পর মাঠে গেন্ডারি আখ। বাঁশ দিয়ে সোজা রাখা হয়েছে। চাষিরা জমির আখ কাটছেন আর এই কাটা আখ বাজারে নিয়ে বিক্রি করছেন। আবার অনেকে বিভিন্ন জেলা থেকে আসা আখের ব্যাপারির কাছে নগদ টাকায় বিক্রি করে দিচ্ছেন।

উপজেলার কাউড়িখোলা গ্রামের কৃষক বিপুল গাইন জানান, তিনি গত তিন বছর গেন্ডারি আখের চাষ করছেন। তিনি জানান, ৯৬ শতক জমিতে গেন্ডারি আখের চাষ করে এক মৌসুমে তিনি এক লাখ টাকা লাভ করেছেন। এ বছরও তিনি সমপরিমাণ জমিতে চাষ করেছেন। আশা করছেন, এবারও লক্ষাধিক টাকা লাভ হবে।