ফুলবাড়ীতে টসটসে লিচু, জমে উঠেছে বেচাকেনা

ঢাকা, শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৭

ফুলবাড়ীতে টসটসে লিচু, জমে উঠেছে বেচাকেনা

মেহেদী হাসান উজ্জ্বল, ফুলবাড়ী, দিনাজপুর ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ, জুন ০৪, ২০২০

print
ফুলবাড়ীতে টসটসে লিচু, জমে উঠেছে বেচাকেনা

ধান লিচুতে ভরপুর উত্তরের জেলা দিনাজপুরÑ এই প্রবাদকে সত্য প্রমাণিত করে বরাবরের মতো এবারও দিনাজপুরের বিভিন্ন উপজেলায় প্রচুর পরিমাণে লিচুর ফলন হয়েছে। মৌসুমের শুরুতেই জেলার ফুলবাড়ীতে বাজারে উঠতে শুরু করেছে লাল টসটসে রসালো বিভিন্ন জাতের মিষ্টি লিচু। সেইসঙ্গে জমে উঠেছে বেচাকেনাও। এ জেলার লিচু সুস্বাদু হওয়ায় ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় নিয়ে যাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে তুলনামূলক এবার লিচুর দাম অনেকটাই সস্তা।

ফুলবাড়ী বাজারে মাদ্রাজি, বেদানা, বোম্বাই জাতসহ বিভিন্ন জাতের লিচু বেচাকেনা চলছে। পর্যায়ক্রমে কাঁঠালি, চায়না, চায়না-৩ জাতের লিচুও আসবে বাজারে। মাদ্রাজি প্রতি শ’ বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১৩০ টাকায়, বোম্বাই প্রতি শ’ ১২০ টাকায়, বেদানা প্রতি শ’ ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকায়।

এদিকে পাইকার আর বেপারিরা উপজেলার বিভিন্ন বাগান থেকে লিচু কিনে ট্রাকে করে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় নিয়ে যাচ্ছেন। কেউ কেউ আবার প্রিয়জনদের জন্য লিচু কিনে কুরিয়ারের মাধ্যমে গন্তব্যে পাঠাচ্ছেন।

লিচু ব্যাবসায়ী শফিকুল ও রায়হান বলেন, করোনার কারণে গত বছরের তুলনায় এবার লিচুর চাহিদা অনেকটাই কম। তাই দামও অনেক কম। সে কারণে এ বছর ব্যবসা ভালো হচ্ছে না। তাছাড়া এবার লিচুতে খুব একটা লাভ করাও সম্ভব হবে না।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ এ টি এম হামীম আশরাফ বলেন, ফুলবাড়ী উপজেলায় মোট ৬৮ হেক্টর জমিতে লিচুর বাগান রয়েছে। প্রতি হেক্টরে সাড়ে ৭ টন করে মোট ৪৭৬ মেট্রিক টন লিচু উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এ বছর বেদেনা, হাইব্রিড জাতের চায়না থ্রি ও চায়না ফোর জাতের লিচু ব্যাপকহারে চাষ করা হয়েছে। এছাড়া দেশি জাতের মাদ্রাজি, বোম্বাই ও কাঁঠালি লিচু রয়েছে। ঝড়ের কারণে এবছর উপজেলায় ২৭ মেট্রিক টন লিচু ঝড়ে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন প্রায় ৩০০ কৃষক। তবে বাজারজাতকরণে বাগান মালিক ও চাষিরা যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হন, সেজন্য সবরকম খোঁজ-খবর রাখা হচ্ছে।