অর্কিডের যত্ন নিবেন যেভাবে

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

অর্কিডের যত্ন নিবেন যেভাবে

ডেস্ক রিপোর্ট ১:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৬, ২০১৮

print
অর্কিডের যত্ন নিবেন যেভাবে

বেশি স্থায়িত্বের ফুল ও সতেজ গাছ পেতে অর্কিডের জন্য দরকার সঠিক যত্ন। তাই অর্কিডপ্রেমীর জন্য এখানে গুরুত্বপূর্ণ কিছু টিপস দেয়া হলো। যা আপনাকে সহায়তা করবে সঠিকভাবে অর্কিডের যত্ন নিতে। আসুন জেনে নেই কিভাবে পরিচর্যা করবেন অর্কিড গাছ ও ফুলের।

পানি দেয়া
অর্কিডের উপরে পানি দেয়া যাবে না। এতে ফুলের কুড়িতে ও পাতার ফাঁকে পানি জমে থাকে। যা পচন ধরাতে পারে। পানি দিতে গিয়ে গাছ সম্পূর্ণ ভিজে গেলে সাথে সাথেই টিস্যু দিয়ে তা মুছে শুকনো করে দিতে হবে।

পানি অপসারণ
অর্কিড বেশি পানি সহ্য করতে পারে না। ফুটন্ত অর্কিডের টব বা পাত্রে কোনভাবেই অতিরিক্ত পানি জমতে দেয়া যাবে না। অতিরিক্ত পানি যাতে খুব সহজেই বেরিয়ে যায়, সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

ঠান্ডা পানি নয়
খুব ঠান্ডা পানি অর্কিডের মূলের ক্ষতি করে থাকে। অর্কিডে সাধারণত নাতিশীতোষ্ণ পানি সরবরাহ করুন। বরফ টুকরো দিয়ে ইন্ডোর প্লান্টে পানি দেয়ার পদ্ধতি অর্কিডের ক্ষেত্রে উপযুক্ত নয়।

উপযুক্ত খাবার
উপযুক্ত খাবার অর্কিডের গাছ ও ফুলের জন্য অপরিহার্য। যা অর্কিডের জীবনকাল ও লাবণ্য বাড়িয়ে দেয়। মাসে অন্তত একবার অর্কিডের গাছে খাবার দিন। সুপার শপ বা অনলাইন শপে খাবার পেতে পারেন।

ডাল আলাদা নয়
অর্কিডের গোড়ার দিকে ডালগুলো একসাথে চাপাচাপি করে লেগে থাকে। এগুলো অর্কিডের পাওয়ার হাউস বা ব্যাটারির মত কাজ করে। কখনোই এগুলো আলাদা করা যাবে না।

টবের মাটি
সচরাচর টবে চাষ করার জন্য যে মাটি ব্যবহার করা হয়, তা অর্কিডের জন্য উপযোগী নয়। তাই প্রচলিত টবের মাটি বাদ দেয়াই ভালো। এর জন্য নারিকেলের ছোঁবড়া, ইটের খোয়া ইত্যাদি উপযুক্ত জিনিস।

আলোতে না রাখা
সরাসরি সূর্যের আলোতে অর্কিডের টব বা পাত্র না রাখা ভালো। কম তাপমাত্রা আর ছায়াযুক্ত স্থানে রাখুন শখের অর্কিড।

ফুল না ভেজানো
অর্কিডের পাতা অল্প সময়ের জন্য ভিজিয়ে দেয়া ভালো। তবে ফুল ভেজানো অর্কিডের জন্য ক্ষতিকর। ফুল ভেজালে তার স্থায়িত্ব কমে যায় এবং এতে দ্রুত ফুলে পচন ধরে।

শেকড় না কাটা
অর্কিড আদি শেকড় দিয়ে শ্বাসকার্য চালায়। তাই এগুলোকে না কাটাই ভালো।

পাত্র পরিবর্তন
অর্কিড দুই বছর একই পাত্রে থাকতে পারে। কারণ শেকড় বাড়ার সাথে সাথে এর ভেতরের জায়গার পরিমাণ কমে আসে। তাই পাত্র পরিবর্তনের সময় মরা শেকড় কেটে বাদ দিতে হবে।