সোমবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৮
১৪ শতাংশ সংবাদে মানুষের বিশ্বাস
নিজস্ব প্রতিবেদক
Published : Friday, 12 January, 2018 at 3:34 PM, Update: 12.01.2018 3:42:18 PM
১৪ শতাংশ সংবাদে মানুষের বিশ্বাসদেশের গণমাধ্যমে প্রকাশিত ১৪ শতাংশ সংবাদ পুরোপুরি বিশ্বাস করে মানুষ। আর ২৪ শতাংশ মোটামুটি বিশ্বাস করে। ৫৮ শতাংশ সংবাদের কোনো কোনো ঘটনার বিবরণ পাঠকদের মনে সন্দেহ তৈরি করে। 
গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীতে প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের (পিআইবি) মিলনায়তনে আয়োজিত কর্মশালায় তুলে ধরা এক গবেষণার ফলাফলে এ কথা জানানো হয়।  
গবেষণাটি করে বেসরকারি সংগঠন ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড রিসোর্সেস ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ (এমআরডিআই)। এতে সহায়তা করে জাতিসংঘের সংস্থা ইউনিসেফ।  
‘সংবাদবোধ এবং খবরের নীতি-নৈতিকতা’ শীর্ষক কর্মশালায় ওই ফলাফল তুলে ধরেন এমআরডিআইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাসিবুর রহমান। তিনি জানান, প্রকাশিত সংবাদের মাত্র আট শতাংশের মধ্যে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের মতামত নেওয়া হয়। বাকি সংবাদে কোনো না কোনো ঘাটতি থেকে যায়।
গবেষণার জরিপে দেখা গেছে, গণমাধ্যমের যেসব সংবাদ প্রকাশিত হয়, তার ৪৪ শতাংশেই গণমাধ্যমের নীতি-নৈতিকতা অনুসরণ করা হয় না। ২৫ শতাংশ অনুসরণ করা হয়। আর ৩১ শতাংশ মানুষ এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে মত দিয়েছেন। ৯৬ শতাংশ অবশ্য মনে করে, সংবাদমাধ্যমের উচিত নীতি-নৈতিকতা মেনে প্রতিবেদন তৈরি করা। 
হাসিবুর রহমান জানান, ঢাকাসহ দেশের ছয়টি এলাকায় ওই জরিপটি করা হয়েছে। এ জন্য তারা ১৪০ জন উত্তর দাতার কাছ থেকে প্রশ্নমালার ভিত্তিতে মতামত নিয়েছেন। বিষয়ভিত্তিক দলীয় আলোচনা (এফজিডি) করেছেন ৬০টি, ৩৫টি বিশেষ সাক্ষাৎকার নিয়েছেন ও ৬০টি মতবিনিময় সভা করেছেন। গবেষণায় উঠে আসা সুপারিশ হিসেবে তিনি পাঠক ও সংবাদকর্মীদের মধ্যে মতবিনিময়ের আয়োজন করেন। সংবাদবোধ ও নৈতিকতার বিষয়টিকে পাঠ্যবইতে যোগ করা এবং সংবাদমাধ্যমের মালিক ও ব্যবস্থাপকদের পাঠকদের মতামতগুলো জানানো।
ওই কর্মশালায় বক্তব্য দেন- তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক, পিআইবির মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীর ও বার্তা সংস্থা ইউএনবির নির্বাহী সম্পাদক রিয়াজ আহমেদসহ অনেকেই।   
অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধে পড়েন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।   
 




সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: আহসান হাবীব
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত খোলাকাগজ ২০১৬
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বসতি হরাইজন এ্যাপার্টমেন্ট নং ১৮/বি, হাউজ-২১, রোড-১৭, বনানী বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১২১৩।
ফোন : +৮৮-০২-৯৮২২০২১, ৯৮২২০২৯, ৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৬, ৯৮২২০৩৭, ফ্যাক্স: ৯৮২১১৯৩, ই-মেইল : kholakagojnews@gmail.com
Developed & Maintenance by i2soft
var _Hasync= _Hasync|| []; _Hasync.push(['Histats.start', '1,3452539,4,6,200,40,00010101']); _Hasync.push(['Histats.fasi', '1']); _Hasync.push(['Histats.track_hits', '']); (function() { var hs = document.createElement('script'); hs.type = 'text/javascript'; hs.async = true; hs.src = ('//s10.histats.com/js15_as.js'); (document.getElementsByTagName('head')[0] || document.getElementsByTagName('body')[0]).appendChild(hs); })();