সোমবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৮
সরকারের চার বছর
সাফল্য ও ব্যর্থতার খতিয়ান
খোলা কাগজ প্রতিবেদক
Published : Friday, 12 January, 2018 at 12:52 PM
সাফল্য ও ব্যর্থতার খতিয়ান
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করে। যুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী দল আওয়ামী লীগ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয় অর্জনের পর ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি টানা দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য সরকার গঠন করে। টানা দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতা গ্রহণের চার বছর পূর্ণ করে পঞ্চম বছরে পদার্পণ করেছে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দলের সরকার। এই চার বছরে সরকারের সাফল্য যেমন আছে; তেমনি আছে নানা ব্যর্থতাও। বিশ্লেষকদের মতে, ক্ষমতার চার বছরে আগের মেয়াদের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে সরকার। আছে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গৌরবময় অনেক অর্জন। তবে সুশাসন নিয়ে বারবারই প্রশ্ন উঠেছে। অন্যতম বড় দল বিএনপিকে রাজনীতির মাঠে সমান সুযোগ না দেওয়া এবং গুম-খুনের বিষয়টি সমালোচনায় বিদ্ধ করেছে সরকারকে। পঞ্চম বছরটি সরকারের নির্বাচনের বছর। তাই সরকারের সাফল্য ও ব্যর্থতার সঙ্গে সঙ্গে শেষ বছরে এসে বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করা। গত নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ দমনে জিরো টলারেন্স রেখে সুশাসন প্রতিষ্ঠার তাগিদ এবার আরও জোরালো। সেই সঙ্গে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার ওপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
সরকারের সাফল্যগুলো
মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি  
প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির (জিডিপি) হার ৭ দশমিক ২৮ শতাংশ, বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ ৩২ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার এবং রপ্তানির পরিমাণ ৩৮ দশমিক ৫০ বিলিয়ন ডলার দাঁড়িয়েছে। মাথাপিছু আয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৬১০ ডলার।
ডাটাবেজ তৈরি  
বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণের লক্ষ্য পূরণের সুবাদে দেশের ১৬২ মিলিয়ন জনসংখ্যা একটি ডিজিটালাইজড জ্ঞানভিত্তিক সমাজে পরিণত হয়েছে। এ লক্ষ্যে একটি ডাটবেজ তৈরি করা হয়েছে।
সক্ষমতা বৃদ্ধি  
আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের দুই মেয়াদে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার ও ব্যয় কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে মেগা প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়নে দেশের সক্ষমতা বেড়েছে। পদ্মা সেতু প্রকল্প, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প যার উদাহরণ।
প্রযুক্তি খাতে উন্নয়ন  
দেশের তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে সরকার ব্যাপক অগ্রগতি অর্জন করেছে। দেশের মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০১৭ সালে নভেম্বরে দাঁড়িয়েছে ১৪৩ দশমিক ১০৬ মিলিয়ন। এ সময় মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮০ দশমিক ১৬৬ মিলিয়ন। দেশের আইটি খাতের নতুন সম্ভাবনা যশোরে ‘শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক’ প্রধানমন্ত্রী গত বছরের ১০ ডিসেম্বর উদ্বোধন করেন।
কমেছে দরিদ্রতা  
দেশের ৫৭ দশমিক ৬৭ লাখ লোককে তাদের দারিদ্র্য থেকে বেরিয়ে আসতে আর্থিক সহযোগিতা দিতে সরকার সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর প্রসার এবং বরাদ্দ বৃদ্ধি করেছে। দেশের ৮৩ শতাংশের বেশি লোক এখন বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় এসেছে। বাংলাদেশের মোট বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৬ হাজার মেগাওয়াট। জেন্ডার সক্ষমতায় বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে। গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ রিপোর্ট ২০১৬-তে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বৈশ্বিকভাবে বাংলাদেশের অবস্থান ৭ম।
বঙ্গবন্ধুর ভাষণের স্বীকৃতি  
গত বছরের ৩০ অক্টোবর ইউনেস্কো ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।
৬ লেনের ফ্লাইওভার নির্মাণ  
দেশের প্রথম ৬ লেনের ফ্লাইওভার নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৪ জানুয়ারি ফেনী জেলার মহিপালে এই ফ্লাইওভার উদ্বোধন করেন।
রোহিঙ্গাদের আশ্রয়  
মিয়ানমারের বিতাড়িত কয়েক লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতা ও শান্তির এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এ জন্য আন্তর্জাতিক মহল তাকে ‘মাদার অব হিউম্যানিটি’ এবং ‘নিউ স্টার অব দ্য ইস্ট’ অভিধায় ভূষিত করে।
অবকাঠামো  
পদ্মা সেতু, রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র, মেট্রোরেল, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র, পায়রা সমুদ্রবন্দর, মাতারবাড়ি বিদ্যুৎকেন্দ্র, পদ্মা সেতু রেল লিংক এবং দোহাজারী-কক্সবাজার-গুনদুম রেললাইনের মতো মেগা প্রকল্পের কাজ চলছে।
গত বছরের ৩০ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বহুলপ্রতীক্ষিত দেশের প্রথম রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রধান নির্মাণকাজ উদ্বোধন করায় বাংলাদেশ গ্লোবাল নিউক্লিয়ার ক্লাবে প্রবেশ করেছে। প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প বহুমুখী পদ্মা  সেতু প্রকল্প। দেশের বৃহত্তম এই অবকাঠামোর নির্মাণকাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যেই ৫০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।
মাতারবাড়িতে ১২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিপিজিসিবিএল) সুমিতোমোর নেতৃত্বাধীন জাপানি কনসোর্টিয়ামের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।
সরকারের সমালোচনা হয় যে বিষয়গুলো নিয়ে  
চাল ও পিয়াজের মূল্যবৃদ্ধি  
২০১৭ সালজুড়ে পিয়াজ ও চালের দাম ছিল ঊর্ধ্বমুখী। দেশি পিয়াজ ১২০ থেকে ১৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। আমদানি করা ভারতীয় পিয়াজও বিক্রি হয়েছে ৮০ টাকা কেজি দরে। চড়া ছিল নিত্যপণ্যের বাজারও।  
জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি  
বিদ্যুতের দাম, গ্যাসের দাম, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে জনগণের ওপর যে বোঝা তৈরি হয়েছে সরকারের সুনামকে তা কিছুটা ম্লান করেছে। জ্বালানির দাম বেশি হওয়ায় সরকারকে কম সমালোচনার মুখে পড়তে হয়নি।
ব্যাংকিং খাতে নৈরাজ্য  
চার বছরে আলোচনায় ছিল ব্যাংকিং খাত। এর মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের রির্জাভ চুরি, বেসিক ব্যাংকে কেলেঙ্কারি, ইসলামী ব্যাংকের মালিকানা ও ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন,  ফারমার্স ও এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকের অনিয়মসহ ব্যাংকিং খাত ছিল সমালোচনার শীর্ষে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে, দেশে বর্তমানে সরকারি-বেসরকারি মিলে ব্যাংকের সংখ্যা ৫৭টি। এর মধ্যে বেশিরভাগ ব্যাংকের অবস্থাই খারাপ।
খুন, গুম বেড়েছে  
বিগত চার বছরে খুন, গুম ছিল খুবই আলোচিত। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ছয় মাসে দেশে চার সহস্রাধিক মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ৮৫৫টি হত্যাকা-। গুম বা নিখোঁজ হয়েছেন ৫২ জন। বন্দুকযুদ্ধে বিচারবহির্ভূত হত্যার শিকার হয়েছেন ৮৩ জন।
প্রশ্নপত্র ফাঁস
বিগত বছরগুলোয় প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা ছিল বেশ আলোচিত। এ ঘটনায় সরকারকে বেশ বিব্রতকর অস্থায় পড়তে হয়েছে। প্রাইমারি স্কুল থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা, চাকরির পরীক্ষা সব ক্ষেত্রেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা ছিল বেশ আলোচিত। প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এমপিরাও। 



সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো: আহসান হাবীব
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত খোলাকাগজ ২০১৬
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বসতি হরাইজন এ্যাপার্টমেন্ট নং ১৮/বি, হাউজ-২১, রোড-১৭, বনানী বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১২১৩।
ফোন : +৮৮-০২-৯৮২২০২১, ৯৮২২০২৯, ৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৬, ৯৮২২০৩৭, ফ্যাক্স: ৯৮২১১৯৩, ই-মেইল : kholakagojnews@gmail.com
Developed & Maintenance by i2soft
var _Hasync= _Hasync|| []; _Hasync.push(['Histats.start', '1,3452539,4,6,200,40,00010101']); _Hasync.push(['Histats.fasi', '1']); _Hasync.push(['Histats.track_hits', '']); (function() { var hs = document.createElement('script'); hs.type = 'text/javascript'; hs.async = true; hs.src = ('//s10.histats.com/js15_as.js'); (document.getElementsByTagName('head')[0] || document.getElementsByTagName('body')[0]).appendChild(hs); })();